মাধ্যমিকের পর কী নিয়ে পড়বো। How to Do After Madhyamik

মাধ্যমিক দেওয়ার পর কি নিয়ে পড়া উচিত তাই নিয়ে শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের মধ্যে একটা দুশ্চিন্তা কাজ করে। কেননা মাধ্যমিক পাশ করার পরেই ক্যারিয়ার নিয়ে সঠিক অনুসন্ধান শুরু হয়। অনেক শিক্ষার্থী মাধ্যমিক দেওয়ার পরেই স্ট্রিম বেছে নেয়ার ক্ষেত্রে অনেক ভুল করে থাকেন। আর এর ফলে পরবর্তীতে Higher Education এর বিষয়ে খুব সমস্যা হতে পারে। মাধ্যমিকের পর একটি ভুল সিদ্ধান্ত আপনার ক্যারিয়ার জীবন সম্পূর্ণ বিনষ্ট করে দিতে পারে।

আজকের প্রতিবেদনে আমরা বিশেষভাবে আলোচনা করব মাধ্যমিকের পর কী বিষয় নিয়ে পড়া উচিত, মেধার ভিত্তিতে কোন বিষয়টি ভালো এবং কোন কোন বিষয়ে কি কি কর্মক্ষেত্র রয়েছে। তাই প্রতিবেদনটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন আশাকরি এটি পড়ার পর মাধ্যমিকের পর আপনার সিদ্ধান্ত নিতে কোনো প্রকার অসুবিধা হবে না।

মাধ্যমিকের পর কী নিয়ে পড়বো

মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার পর কোন কোন বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করলে পরবর্তীতে চাকরির ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা অনেক কম থাকে এবং কোন স্ট্রিম এ কি কি ক্যারিয়ারের বিকল্প রয়েছে তা নিম্নে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হলো।

1) মাধ্যমিকের পরে বিজ্ঞান (Science)

প্রত্যেক শিক্ষার্থীর অভিভাবকগণ চান যে তাদের ছেলে মেয়ে Science নিয়ে পড়াশোনা করুক আর একই সঙ্গে বেশিরভাগ ছাত্রছাত্রীরাও Science স্ট্রিমটিকে খুবই পছন্দ করে। বর্তমান সমাজে সাইন্স নিয়ে পড়াশোনা কে খুব গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হয়।

Science নিয়ে পড়াশোনা করলে অনেক সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যায় এর মধ্যে একটি বড় সুবিধা হলো ধরুন আপনি উচ্চ মাধ্যমিকে সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করেছেন কিন্তু আপনি যদি চান স্নাতকে স্ট্রিম পরিবর্তন করবেন তাহলে আপনি করতে পারেন। যদি স্নাতক স্তরে সাইন্স থেকে আপনি আর্টস বা কমার্স বিষয়ে যেতে চান তাহলে খুব সহজেই আপনি যেতে পারবেন। অন্য কোনো বিষয় নিয়ে পড়লে এ সুবিধা পাওয়া যায় না।

Science বিষয়ে ক্যারিয়ার

চিকিৎসা বিজ্ঞান: বায়োকেমিস্ট্রি, বায়োইনফরমেটিক্স, বায়োমেকানিক্স,ডেন্টাল সাইন্স,জেনেটিক্স, ইমিউনোলজি, মাইক্রোবায়োলজি, প্যাথলজি ইত্যাদি

ইঞ্জিনিয়ারিং: সিভিল ইন্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, নিউক্লিয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং আরও অনেক কিছু‌।

2) কমার্স (Commerce)

বিজ্ঞানের পরই দ্বিতীয় জনপ্রিয় ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো কমার্স। যদি আপনি পরবর্তীতে ব্যবসা করতে চান এবং অ্যাকাউন্টিং ভালোবাসেন সেইসঙ্গে অর্থনীতি সম্বন্ধে বিশদ জানতে চান তাহলে আপনি কমার্স নিয়ে পড়তে পারেন। বর্তমান সময়ে প্রত্যেকটি জায়গায় কমার্সের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

উচ্চমাধ্যমিকে কমার্স নিয়ে পাশ করার পর আপনি যদি চান গ্রাজুয়েশনে স্ট্রিম পরিবর্তন করবেন তাহলে শুধুমাত্র আপনি আর্টস বিষয়ে যেতে পারবেন কিন্তু এ ক্ষেত্রে বিজ্ঞানের কোন বিষয় নিতে পারবেন না।

Commerce বিষয়ে ক্যারিয়ার: Banking, Accountancy,Chartered Accountant, Finance Planning, Management Accounting, Actuaries ইত্যাদি।

3) কলা বিভাগ (Arts/ Humanities)

বর্তমানে অনেকেরই বক্তব্য থাকে যে আর্টস নিয়ে পড়লে জীবনে কোন কিছুই করা যায় না এবং যে ছাত্র-ছাত্রীরা পড়াশোনায় দুর্বল তারাই আর্টস নিয়ে এগিয়ে যায়। কিন্তু এ ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল অনেক শিক্ষার্থী রয়েছেন যারা আর্টস নিয়ে পড়াশোনা করে আজকে সমাজে সফল ভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন।

সরকারি চাকরির পরীক্ষার ক্ষেত্রে কলা বিভাগ অর্থাৎ আর্টস বিষয়ে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ক্ষেত্রে কলা বিভাগ থেকে বেশিরভাগ প্রশ্নই প্রদান করা হয়। যেমন আপনি যদি UPSC, SSC এই পরীক্ষাগুলির জন্য প্রস্তুতি নিয়ে থাকেন তাহলে বুঝতে পারবেন যে এদের সিলেবাসের বেশিরভাগ অংশেই কলা বিভাগ রয়েছে।

এই কলা বিভাগে যে সমস্যাটি রয়েছে সেটি হল উচ্চমাধ্যমিকের পর আপনি স্ট্রিম পরিবর্তন করতে পারবেন না। আপনি কোনভাবেই সাইন্স অথবা কমার্স যেতে পারবেন না।

Arts বিষয়ে ক্যারিয়ার: সাংবাদিক, শিক্ষকতা, আইনজীবী, লেখক, সমাজসেবা আরও অনেক কিছু।

4) ITI কোর্স

ITI এর সম্পূর্ণ নাম হল Industrial Training Institute। মাধ্যমিকের পরে আপনি আইটিআই কোর্স করতে পারেন। বিশেষ করে আপনি যদি রেলের লোকো পাইলট বা অন্যান্য পদে চাকরি করতে চান তাহলে আপনাকে আইটিআই কোর্স সম্পন্ন করতে হবে। আই টি আইতে বিভিন্ন কোর্স রয়েছে। কোর্সগুলির সময়কাল এক থেকে তিন বছর পর্যন্ত রয়েছে। 

আইটিআই তে দুই ধরনের কোষ রয়েছে একটি হচ্ছে ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স আরেকটি নন ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স।

ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স করতে গেলে আপনাকে ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিষয় পড়তে হবে সেই সঙ্গে গণিত পদার্থবিদ্যা এবং টেকনিক্যালের অনেকগুলি বিষয় থাকবে।

নন ইঞ্জিনিয়ারিং এর ক্ষেত্রে আপনাকে সফট স্কিল এর মাধ্যমে কোর্স করানো হবে। এখানে যে কোর্স গুলি খুবই জনপ্রিয় সেগুলি হল

  • Fitter – ২ বছর
  • Electrician – ২ বছর
  • Mechanical – ২  বছর
  • Surveyor – ২ বছর
  • Pump operator – ১ বছর
  • Tool & Die Maker – ৩ বছর
  • Dress Making – ১ বছর

5) Polytechnic কোর্স

মাধ্যমিকের পরে পলিটেকনিক কোর্স হল একটি গুরুত্বপূর্ণ কোর্স কারণ এই কোর্স করার পরে আপনি বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রিয়াল কোম্পানি এবং সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে খুব সহজেই চাকরি পেতে পারবেন। এই কোর্সের মেয়াদ হল তিন বছর।

পলিটেকনিক কোর্স করার পর আপনি B Tech করতে পারেন। কিন্তু আপনি যদি IIT থেকে B Tech করতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে আপনাকে JEE Main এবং JEE Advance এ পাশ করে থাকতে হবে। পলিটেকনিকে যে কোর্সগুলো খুবই জনপ্রিয় সেগুলো নিচে বর্ণনা করা হলো

  • Diploma In Civil Engineering
  • Diploma In Computer Engineering
  • Diploma In Mechanical Engineering
  • Diploma in Automobile Engineering
  • Diploma In Mechanical Engineering

6) Paramedical কোর্স

যদি আপনার স্বপ্ন থাকে জনগণের সেবা করার তাহলে প্যারামেডিকেল কোর্স টি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কোন প্রকার জয়েন এন্ট্রান্স পরীক্ষা ছাড়াই আপনি প্যারামেডিকেল কোর্সে ভর্তি হতে পারবেন। বর্তমান সময়ে করোনা মহামারীর প্রকোপে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বহু মেডিকেল স্টাফ নিয়োগ করা হচ্ছে তো সেই ক্ষেত্রে প্যারামেডিকেল কোর্স আপনার জন্য খুবই প্রয়োজন হয়ে দাঁড়াবে।

প্যারামেডিকেল কোর্সে দুটি ভাগ রয়েছে। একটি হল সার্টিফিকেট কোর্স আরেকটি হলো ডিপ্লোমা কোর্স। সার্টিফিকেট কোর্স এর সময়কাল তিন মাস থেকে 1 বছর এবং ডিপ্লোমা কোর্স এর সময়কাল 1 থেকে 2 বছর পর্যন্ত। প্যরামেডিকেলে যে কোষ গুলি খুবই জনপ্রিয় সেগুলো নিম্নে বর্ণনা করা হলো

  • Diploma In X-Ray 
  • MRI Technician
  • Diploma In Dialysis Technique
  • Diploma In EECG

7) চাকরি (Job)

অনেকে মাধ্যমিক পাস করার পর চাকরি করার জন্য খুবই উদগ্রীব হয়ে পড়েন। এ ক্ষেত্রে সরকারি এবং বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রে চাকরির সুযোগ রয়েছে কিন্তু বেতনের পরিমাণ তুলনামূলকভাবে অনেকটা কম ।

বেসরকারি কোম্পানিতে আপনি ডাটা এন্ট্রি অপারেটর ক্লার্ক এর চাকরি করতে পারেন কিন্তু সেক্ষেত্রে আপনার নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে একটা প্রশ্ন থেকেই থাকে কিন্তু আপনি যদি মাধ্যমিক পাস যোগ্যতার সরকারি চাকরি পেতে চান তাহলে নিচে কিছু উদাহরণ দেওয়া হল যেগুলোতে আপনি চাকরি করতে পারেন –

  • Indian Army
  • Indian Navy
  • Indian Airforce
  • Bsf
  • Indian Railway
  • Indian Post Office
  • WBP Constable
  • College Clerk and Group-D

উপসংহার

আশাকরি মাধ্যমিকের পর আপনার কি করা উচিত তা নিয়ে আপনার সমস্ত প্রকার সংশয়দূরীভূত হয়েছে। মাধ্যমিকের পর স্ট্রিম বেছে নেওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই প্রত্যেক অভিভাবক, অভিভাবিকা এবং শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে একটি বার্তা যে মাথা ঠান্ডা রেখে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুন। কোনভাবে শিক্ষার্থীকে চাপ দিয়ে বিশেষ স্ট্রিম বেছে নিতে বাধ্য করাটা উচিত নয়।

আপনার কাছের কেউ যদি মাধ্যমিকের পর কী করবে বুঝতে পারছে না তাহলে এই পোস্টটি শেয়ার করে সহযোগিতা করতে ভুলবেন না।

FAQ

1. কোন বিষয় নিয়ে পড়লে ভালো চাকরি পাওয়া যায়?

Science, Commerce এবং Technology নিয়ে পড়লে ভালো চাকরি পাওয়া যায়।

2. আর্টস নিয়ে পড়লে কি কি চাকরি পাওয়া যায় ?

শিক্ষক, ক্লার্ক ও গ্রুপ ডি, কনস্টেবল, পোষ্ট অফিসে চাকরি ইত্যাদি।

3. মাধ্যমিকের পর কী নিয়ে পড়বো ?

মনোযোগ সহকারে পড়লে যেকোনো বিষয়ে সফলতা অর্জন করা যায় কিন্তু আমার মতে Science নিয়ে পড়লে সফলতা হাতের মুঠোয় চলে আসে।

1 thought on “মাধ্যমিকের পর কী নিয়ে পড়বো। How to Do After Madhyamik”

Leave a Comment