ই শ্রম কার্ড প্রকল্প | E-Shram Card In Bengali @eshram.gov.in

কেন্দ্র সরকারের একটি নতুন প্রকল্প যার নাম হল ই শ্রম কার্ড প্রকল্প। এই প্রকল্পের দ্বারা দেশের প্রত্যেক দরিদ্র শ্রমিক উপকৃত হবেন। এই প্রকল্পের সুবিধা নেওয়ার জন্য প্রত্যেককে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। আপনি নিজে এবং আপনার আত্মীয় স্বজন প্রত্যেকেই এই ই শ্রম কার্ড Apply করতে পারেন। ই শ্রম কার্ড নিয়ে যাবতীয় তথ্য থাকছে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে। তাই প্রতিবেদনটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত খুব মনোযোগ সহকারে পড়ার অনুরোধ রইল।

ই শ্রম কার্ড কী(What is E-Shram Card)

আপনারা প্রত্যেকেই জানেন কেন্দ্র সরকার থেকে One Nation One Card বিষয়ে ঘোষণা করা হয়েছে এবং সেই মতো সারাদেশে প্রত্যেকের “এক রেশন কার্ড” চালু হয়েছে। ঠিক এ রকমই একটি প্রকল্পের নাম হল ই শ্রম কার্ড(E-Shram Card) যেখানে অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করা সমস্ত শ্রমিকদের একত্রিত করা হচ্ছে। 

এই প্রকল্পের মাধ্যমে দরিদ্র শ্রমিকদের রোজগার প্রদান করা হবে। প্রত্যেক শ্রমিককে একটি করে নির্দিষ্ট নাম্বার প্রদান করা হবে। সারাদেশে প্রায় 43.7 কোটি শ্রমিক অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করেন, এই সমস্ত শ্রমিকদের নিয়ে একটি ডাটাবেস তৈরি করেছে কেন্দ্র সরকার। এই ডাটাবেসকে কাজে লাগিয়ে কেন্দ্র সরকার বিভিন্নভাবে শ্রমিকদের কে সহযোগিতা প্রদান করবে।

ই শ্রম কার্ডের সুবিধা(Benefits Of E-Shram Card)

সরকারের প্রত্যেকটি প্রকল্প মানুষদের সুবিধা প্রদানের জন্য রূপায়ণ করা হয়। ঠিক একইভাবে ই শ্রম কার্ডের মাধ্যমেও মানুষদের সুবিধা প্রদান করা হবে

  • প্রধানত দরিদ্র শ্রমিকদের রোজগারের ব্যবস্থা জন্য এই প্রকল্পের সূচনা।
  • দুর্ঘটনাজনিত কারনে আপনার মৃত্যু হলে আপনার পরিবারকে সরকার থেকে দু লক্ষ টাকা প্রদান করা হবে
  • আংশিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলে অর্থাৎ কর্মে অসমর্থ হলে সরকার থেকে এক লাখের বেশি টাকা প্রদান করা হবে।
  • এই প্রকল্পে আবেদন করলে আপনি সামাজিক সুরক্ষা বিমা যোজনার সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।
  • এই কার্ড থাকলে আপনি প্রধানমন্ত্রী শ্রমযোগী মানধন প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন।
  • শ্রমিকদের প্রতিমাসে 500 টাকা করে দেওয়া হবে।

ই শ্রমিক কার্ডের অসুবিধা

  • যদি আপনি অসংগঠিত শ্রমিক না হন কিন্তু ই শ্রম কার্ডে আবেদন করেছেন তাহলে আপনি এর সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন না।
  • আপনি যদি একজন ছাত্র হয়ে থাকেন এবং এই কার্ডের জন্য আবেদন করেন তাহলে পরবর্তীতে আপনি যখন কোনো সরকারি চাকরি করবেন তখন ই শ্রম কার্ড অগ্রাহ্য করা হবে।
  • ই শ্রম কার্ড তৈরি করার পর এটিকে বন্ধ করা অথবা Delete করার কোনও বিকল্প পদ্ধতি নেই।

ই শ্রম কার্ডে আবেদন করার যোগ্যতা(Eligibility to apply E-shram Card )

  • প্রথমত ভারতীয় নাগরিক হতে হবে
  • দরিদ্র শ্রমিকরা আবেদন করতে পারবে
  • সরকারি চাকরি করলে আবেদন করতে পারবেন না
  • অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করতে হবে
  • উপভোক্তার নিজস্ব ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে
  • পুরুষ মহিলা যে কেউ আবেদন করতে পারে
  • আবেদনকারীর বয়স 16 থেকে 59 বছরের মধ্যে হতে হবে।

ই শ্রম কার্ডের আবেদন পদ্ধতি(Application)

  1. ই শ্রম কার্ডে আবেদন করতে প্রথমে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট eshram.gov.in এ যেতে হবে।
  2. তারপর “Self Registration” একটি পেজ আপনার সামনে চলে আসবে‌
  3. তারপর আধার কার্ডের সঙ্গে লিংক করা মোবাইল নাম্বার দিতে হবে ।
  4. এখন নিচে “Captcha Code” ইনপুট করতে হবে
  5.  ক্যাপচা কোড সঠিকভাবে দেওয়ার পর “Send OTP” বোতামে ক্লিক করুন
  6. আপনার মোবাইলে একটি OTP পাঠানো হবে।
  7. তারপর আপনার 12 সংখ্যার Aadhar নম্বর ইনপুট করুন।
  8. এরপর Submit বোতামে ক্লিক করুন।
  9. এরপর ধীরে ধীরে সব তথ্য দিয়ে আপনার আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করুন।

ই শ্রমিক কার্ড করতে কী কী লাগবে(Required Documents on E-Shram Card)

  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  • আধার কার্ডের নাম্বার
  • আধারের সঙ্গে যোগ করা মোবাইল নাম্বার
  • সেভিংস ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার
  • রেশন কার্ড
  • ব্যাংকের IFSC কোড
  • বয়সের প্রমাণপত্র 

কারা ই শ্রম কার্ডের সুবিধা ভোগ করতে পারবে

  • দরিদ্র কৃষি শ্রমিক
  • জেলে শ্রমিক
  • অংশীদারি চাষি শ্রমিক
  • লেবেল এবং প্যাকেজিং এ কর্মরত শ্রমিক
  • রাজমিস্ত্রি
  • কাঠের মিস্ত্রী
  • গৃহকর্মী
  • সবজি এবং ফল বিক্রেতা
  • সংবাদপত্র বিক্রেতা
  • সেলুনে কাজ করা শ্রমিক
  • রিকশাচালক
  • টোটো চালক
  • আশা কর্মী
  • MGNREGA তে কর্মরত শ্রমিক ইত্যাদি

ই শ্রমিক কার্ডের লাস্ট ডেট(Last Date E-Shram Card)

এই প্রকল্পের আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল 26 আগস্ট থেকে। কেন্দ্র সরকার থেকে এখনো পর্যন্ত কোন প্রকার লাস্ট ডেট দেওয়া হয়নি। যখনই ই শ্রম পোর্টাল থেকে থেকে কোন আপডেট দেয়া হবে সঙ্গে সঙ্গে আমাদের এ প্রতিবেদনে যুক্ত করা হবে।

FAQ

প্রশ্নঃ ই শ্রম কার্ড কি?

উত্তরঃ দরিদ্র শ্রমিকদের রোজগারের পন্থা।

প্রশ্নঃ ছাত্ররা কী এই ই শ্রম কার্ডে আবেদন করতে পারবে?

উওরঃ না করতে পারবে না ,এটা শুধুমাত্র অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করা শ্রমিক দের জন্য।

প্রশ্নঃ ই শ্রম কার্ডের Last Date কবে?

উত্তরঃ এখনো কোনো লাস্ট ডেট দেওয়া হয়নি।

প্রশ্নঃ ই শ্রম কার্ড প্রকল্প কে শুরু করেছিল?

উত্তরঃ কেন্দ্র সরকার

প্রশ্নঃ ই শ্রম কার্ডের ওয়েবসাইট কী?

উত্তরঃ eshram.gov.in

প্রশ্নঃ ই শ্রম দপ্তর এর যোগাযোগ নাম্বার?

উত্তরঃ 14434

প্রশ্নঃ মোবাইল থেকে কি ই শ্রম কার্ডে আবেদন করা যাবে?

উত্তরঃ হ্যাঁ অবশ্যই করতে পারবেন।

Leave a Comment